সব

ব্রিসবেনে মুহাম্মদ ইউনূসকে সম্মাননা দিয়েছে ব্যাব

ফারুক রেজা, ব্রিজবেন (অস্ট্রেলিয়া) থেকে

মুহাম্মদ ইউনূসকে সম্মাননা দিচ্ছেন ব্যাবের নেতারাঅধ্যাপক মুহাম্মদ ইউনূস ব্রিসবেনে আসবেন শুনেই মনের মধ্য উসখুস করছিল। বিখ্যাত এই মানুষটির কাছে কীভাবে যাওয়া ও ছবি তোলা যায়। মনের কোণে লুকায়িত এই ইচ্ছাপূরণের সুযোগটা একটু বড় পরিসরে করে দিল বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন ব্রিসবেন ইনক (ব্যাব)। গত ১১ এপ্রিল সন্ধ্যায় স্থানীয় একটি হোটেলে ব্যাবের নতুন নির্বাচিত নির্বাহী কমিটি তাঁর সঙ্গে দেখা করে। এ সময় ব্যাবের পক্ষ থেকে মুহাম্মদ ইউনূসকে ‘শুভেচ্ছা স্মারক’ প্রদান করা হয়। অনাড়ম্বর এই আয়োজনে ব্রিসবেন বাংলা রেডিও, ব্রিসবেন বাংলা ল্যাঙ্গুয়েজ স্কুল, সোসাইটি অব বাংলাদেশি ডক্টরস ইন কুইন্সল্যান্ড এবং বাংলাদেশ পূজা ও কালচারাল সোসাইটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আসলে সুযোগ পাওয়া নয়, অনেকটা তদবির করে সুযোগ বের করা হয়েছে। অনেক দেন-দরবারের পর অবশেষে বরফ গলল মানে তাঁর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি মিলল। তাও আবার অনেক শর্তযুক্ত! মুহাম্মদ ইউনূসের সফরসঙ্গী ও গ্রিফিত বিশ্ববিদ্যালয় (যাদের আমন্ত্রণে মুহাম্মদ ইউনূসের ব্রিসবেনে আসা) কর্তৃপক্ষ ব্যাবকে সাফ জানিয়ে দিয়েছিল ১০ জন তাঁর সঙ্গে দেখা করতে পারবেন, মাত্র ১০ মিনিটের জন্য! তাও আবার রাতে তাঁর থাকার হোটেলে। নেই মামার চেয়ে কানা মামা ভালো, অগত্যা তাদের শর্ত মেনে আমরা প্রস্তুতি শুরু করলাম।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের একমাত্র নোবেলপ্রাপ্ত অর্থনীতিবিদ ব্রিসবেনে আসবেন শুনে অধিকাংশ বাংলাদেশিদের চাওয়া ছিল তার সঙ্গে দেখা করার। আর সে কারণেই পরিকল্পনা ছিল তাঁকে ব্যাবের পক্ষ থেকে বেশ বড়সড় করেই সম্মাননা দেওয়া হবে।
এদিকেতো আমাদের ত্রাহি অবস্থা, কাকে রেখে কাকে নিই। যেহেতু আমরা সবাইকে ব্যক্তিগতভাবে ডাকতে পারছি না তাই ব্যাবের নির্বাহী কমিটির সিদ্ধান্তে ব্রিসবেনে বাংলাদেশিদের উল্লিখিত পাঁচটি সংগঠনের সভাপতিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।
মুহাম্মদ ইউনূসের সঙ্গে ব্যাব ও অন্যান্য সংগঠনের নেতারাআমাদের আগে থেকেই জানানো হয়েছে মুহাম্মদ ইউনূসের সময় খুবই কম। যা করতে হবে তা দ্রুত ও সময় অনুযায়ী। আমরা আগে থেকেই জানতাম গ্রিফিত বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ‘থ্রি জিরো’ লেকচার শেষ করে হোটেলে ফিরলে আমরা তাঁর সঙ্গে দেখা করব। সে অনুসারে আমরা ব্যাবের নির্বাহী কমিটির সদস্য বিকাশ সিকদার, তুলি নূর, কামরুল হাসান শামীম, আসিফ ইকবাল, মাহমুদুল আলম খান ও ফারুক রেজা হোটেলে উপস্থিত ছিলাম। এ ছাড়া ব্রিসবেন বাংলা রেডিওর রাজিবুর রেজা, ব্রিসবেন বাংলা ল্যাঙ্গুয়েজ স্কুলের মাহী মোরশেদ, সোসাইটি অব বাংলাদেশি ডক্টরস ইন কুইন্সল্যান্ডের ড. জামিল আহমেদ এবং বাংলাদেশ পূজা ও কালচারাল সোসাইটির দেবদাস গুহ।
শুরুতেই বিকাশ সিকদার ব্যাবের নির্বাহী সদস্যদের মুহাম্মদ ইউনূস কাছে পরিচয় করিয়ে দেন। তিনি সকলের সঙ্গে আলাদা আলাদাভাবে কথা বলে ব্রিসবেনে কে কোথায়, কি করছেন, শহরে বসবাসরত বাংলাদেশিদের সংখ্যা কেমন ইত্যাদি নান বিষয়ে জানতে চান। বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের একত্রিত হয়ে থাকার গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, এতে বহির্বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি বাড়ে। তা ছাড়া নিজ দেশের লোকদের চাকরি-বাকরিসহ নানা পেশায় নিয়োজিতদের উন্নয়ন তাড়াতাড়ি হয়। ‘সোশ্যাল বিজনেস’ প্রসারে বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশিরা ভূমিকা রাখতে পারবেন উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, বিদেশে এসে শুধু চাকরির মানসিকতা নয়, নিজে এমন কিছু করার চিন্তা করতে হবে যাতে মানুষকে দিতে পারা যায়। এ পর্যায়ে তিনি গ্রিফিত বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস সেন্টার’ চালু হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন।
আয়োজনের শেষ ভাগে মুহাম্মদ ইউনূসকে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন ব্রিজবেনের পক্ষ থেকে ‘শুভেচ্ছা স্মারক’ প্রদান করা হয়।

প্রবাসীরা দেশে ফোন করেন সুখের আশায়

প্রবাসীরা দেশে ফোন করেন সুখের আশায়

সবুজের দেশে বৈশাখের রঙে

সবুজের দেশে বৈশাখের রঙে

জেনেভা বাংলা পাঠশালার বর্ষবরণ

জেনেভা বাংলা পাঠশালার বর্ষবরণ

জেদ্দায় বর্ষবরণ উৎসব

জেদ্দায় বর্ষবরণ উৎসব

মন্তব্য ( ২ )

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
1 2 3 4
 
আরও মন্তব্য

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

পাতানো স্বপ্ন

পাতানো স্বপ্ন

‘সু’ বলেই ডাকতাম মেয়েটিকে। সুহাসিনী থেকেই সু। রাজ্যের আকণ্ঠ ভালো...
বশির আহমেদ রাকিব
চীনের চেচিয়াং বিশ্ববিদ্যালয়ে বৈশাখী উৎসব

চীনের চেচিয়াং বিশ্ববিদ্যালয়ে বৈশাখী উৎসব

বৈশাখের নিদাঘ তপ্ত দহনে হৃদয় আজি তৃষ্ণার্ত। স্বয়ং কবিগুরুর লেখনীতেই রয়েছে...
তানজিল মাহমুদ, চেচিয়াং (চীন) থেকে
সঙ্গীর ভালোবাসা

সঙ্গীর ভালোবাসা

রেনুভা নামের ৩৫ বছরের দক্ষিণ ভারতের এক নারীর সঙ্গে পরিচয় এই সেদিন। তিন মাসেরও...
তাহমিনা আমীর, লন্ডন (যুক্তরাজ্য) থেকে
প্রবাসে অনন্য ব্যঞ্জনায় বৈশাখ

প্রবাসে অনন্য ব্যঞ্জনায় বৈশাখ

আমি আর উল্কা হালদার। এমন দিনে এই-ই বড় সুযোগ। বাতাসে ভাসে নববর্ষের শুভেচ্ছা।...
নিমাই সরকার, আবুধাবি (সংযুক্ত আরব আমিরাত) থেকে
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    
© স্বত্ব প্রথম আলো ১৯৯৮ - ২০১৭
সম্পাদক ও প্রকাশক: মতিউর রহমান
সিএ ভবন, ১০০ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভেনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা ১২১৫
ফোন: ৮১৮০০৭৮-৮১, ফ্যাক্স: ৯১৩০৪৯৬, ইমেইল: info@prothom-alo.info